পুঁজিবাজার ফের চার মাস আগের অবস্থানে ফিরে গেছে। এদিন ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) লেনদেন নেমে গেছে ৩০০ কোটির ঘরে।
পুঁজিবাজার

ডিএসইতে লেনদেন নেমে গেছে ৩০০ কোটির ঘরে

পুঁজিবাজার ফের চার মাস আগের অবস্থানে ফিরে গেছে। এদিন ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) লেনদেন নেমে গেছে ৩০০ কোটির ঘরে।পুঁজিবাজার ফের চার মাস আগের অবস্থানে ফিরে গেছে। রোববার দুই স্টক এক্সচেঞ্জে সূচকের ব্যপক পতনে লেনদেন শেষ হয়েছে। আর এদিন ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) লেনদেন নেমে গেছে ৩০০ কোটির ঘরে।

সপ্তাহের প্রথম কার্যদিবসে ডিএসইতে ৩৪৮ কোটি ৯৯ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে। যা আগের দিনের তুলনায় ১৩৭ কোটি টাকা বা ২৮ শতাংশ কম। গত বৃহস্পতিবার ডিএসইতে ৪৮৬ কোটি ৭০ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছিল।

প্রসঙ্গত গত ২৪ জুলাই ডিএসইতে ৩৩৯ কোটি ৫৩ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছিল। এর পর গত আগস্ট মাস থেকে পুঁজিবাজার ফের চাঙ্গা হতে থাকে। আর এই তিন মাসে বাজারে লেনদেন ও মূল্য সূচক রেকর্ড পরিমাণ বাড়ে। কিন্তু  নভেম্বর মাস থেকে বাজারে আবারও দরপতন শুরু হয়। দিনে দিনে পুঁজিবাজারে পতনের পাল্লায় ভারি হচ্ছে। বাজার আবার চার মাস আগের অবস্থানে ফিরে যাচ্ছে।

বিশ্লেষকদের মতে, মার্জিন ঋণ গ্রহীতা বিনিয়োগকারীদের বিরুদ্ধে  মার্চেন্ট ব্যাংকগুলোর ফোরাম বিএমবিএ এর শক্ত অবস্থানের কারণে বাজারে দরপতন হচ্ছে। কারণ বিপুল পরিমাণ বকেয়া মার্জিন ঋণের চাপে বিপর্যস্ত মার্চেন্ট ব্যাংকগুলো। এ কারণে বিএমবিএ  রোববার বিএসইসির কাছে ১ কোটি টাকার বেশি খেলাপি মার্জিন ঋণধারী বিনিয়োগকারীর নাম বাংলাদেশ ব্যাংকের সিআইবিতে অন্তর্ভূক্ত করার প্রস্তাব দিয়েছে। আর এই খবরে বিনিয়োগকারীদের স্নায়ু চাপ বেড়ে গেছে বলে মনে করছেন তারা।

রোববার ডিএসই প্রধান মূল্য সূচক ডিএসই এক্স ৬১ পয়েন্ট কমে ৪ হাজার ৮৩৮ পয়েন্টে অবস্থান করছে। ডিএসইএস বা শরীয়াহ সূচক ১২ পয়েন্ট কমে অবস্থান করছে এক হাজার ১৩৩ পয়েন্টে। আর ডিএস৩০ সূচক ২৯ পয়েন্ট কমে দাঁড়িয়েছে এক হাজার  ৭৮৫ পয়েন্টে।

ডিএসইতে মোট লেনদেনে অংশ নিয়েছে ৩০১টি কোম্পানি ও মিউচ্যুয়াল ফান্ড। এর মধ্যে দর বেড়েছে ৬৩টি কোম্পানির। আর দর কমেছে ২০৬টির এবং অপরিবর্তিত রয়েছে ৩২টির।

এছাড়া আজ ডিএসইতে টাকার অঙ্কে সবচেয়ে বেশি লেনদেন হয়েছে ওয়েস্টার্ন মেরিন শিপইয়ার্ডের শেয়ার। এরপরে রয়েছে- যমুনা অয়েল,  খান ব্রাদার্স পিপি ওভেন ব্যাগ, বরকত উল্লাহ ইলেক্ট্রো ডাইনামিক, ফার্মা এইড, মেঘনা পেট্রোলিয়াম, স্কয়ার ফার্মা, জেএমআই সিরিঞ্জ অ্যান্ড মেডিক্যাল ডিভাইস, আরএসআরএম স্টীল ও কেয়া কসমেটিকস লিমিটেড।

অপরদিকে আজ চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জে (সিএসই) ২৬ কোটি টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে। এদিন সিএসই সার্বিক সূচক  ১৮৯ পয়েন্ট কমে অবস্থান করছে ১৪ হাজার ৯৫১ পয়েন্টে। সিএসইতে লেনদেন হয়েছে ২১৩টি কোম্পানি ও মিউচ্যুয়াল ফান্ড। এর মধ্যে দর বেড়েছে ২৬টির, কমেছে ১৬৯টির এবং অপরিবর্তিত রয়েছে ১৮টির।

শিরোনাম ডট কম
শিরোনাম ডট কম । অনলাইন নিউজ পোর্টাল Shironaam Dot Com । An Online News Portal
http://www.shironaam.com/

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *