Protests-descend-into-violence-against-Trump’s-inauguration

যুক্তরাষ্ট্রে ট্রাম্প-বিরোধী বিক্ষোভ, ২১৭ জন আটক

যুক্তরাষ্ট্রের ৪৫তম প্রেসিডেন্ট হিসেবে শপথ নিয়েছেন ডোনাল্ড ট্রাম্প। স্থানীয় সময় শুক্রবার দুপুর ১২টায় (বাংলাদেশ সময় রাত ১১টায়) মার্কিন পার্লামেন্ট কংগ্রেসের ক্যাপিটল ভবনে সুপ্রিমকোর্টের প্রধান বিচারপতি জন রবার্টস ট্রাম্পকে শপথবাক্য পাঠ করান।

ওয়াশিংটনসহ যুক্তরাষ্ট্রের বিভিন্ন শহরে ছোট-বড় চলছে ট্রাম্প-বিরোধী বিক্ষোভ। এসব বিক্ষোভ থেকে এ পর্যন্ত দুই শতাধিক বিক্ষোভকারীকে আটক করা হয়েছে। এছাড়াও বেশ কয়েকজন পুলিশ সদস্যও আহত হয়েছেন।

স্থানীয় সময় আজ শনিবার সকাল থেকে ট্রাম্প টাওয়ার এর সামনে কয়েক হাজার বিক্ষোভকারী অবস্থান নিয়েছে। ওয়াশিংটনে বিক্ষোভকারী ও পুলিশের মধ্যে একাধিক সংঘর্ষ হয়। পুলিশের একজন মুখপাত্র কোনো কোনো স্থানের বিক্ষোভকে দাঙ্গার সঙ্গে তুলনা করেছেন।

পুলিশ বলছে, বিক্ষোভকারীরা অনেক দোকানে ইট-পাথর ছুড়েছে। এতে এসব প্রতিষ্ঠান ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। বিক্ষোভকারীরা রাস্তায় রাখা ডাস্টবিনগুলোতে আগুন ধরিয়ে দিয়েছে। তাদের নিয়ন্ত্রণে আনতে পুলিশ মরিচ পানির স্প্রে ছুড়েছে।

এ পর্যন্ত ২১৭ জন বিক্ষোভকারীকে আটক করা হয়েছে। অন্ততপক্ষে ছয়জন পুলিশ সদস্য বিক্ষোভকারীদের সঙ্গে সংঘর্ষে আহত হয়েছেন। পুলিশ কর্মকর্তা পিটার নিউসাম বলেন, তিনজন পুলিশ সদস্যের মাথায় আঘাত লেগেছে। অন্যদের আঘাত তত গুরুতর নয়।

ট্রাম্প নিজে বিক্ষোভের বিষয়ে সরাসরি কোনো মন্তব্য করেননি। তবে তার অনেক রিপাবলিকান সমর্থক ক্ষোভ ও দুঃখপ্রকাশ করেছে। শান্তিপূর্ণ ক্ষমতা হস্তান্তরের এই ঐতিহাসিক ঘটনা উদযাপন না করে সহিংস বিক্ষোভ করাকে তারা লজ্জাজনক বলে অভিহিত করেছেন।

বিক্ষোভকারীরা বলছে, ট্রাম্পের ক্ষমতা গ্রহণ অবৈধ। ক্ষমতা গ্রহণের প্রথম দিন থেকেই তারা ট্রাম্পের নাগরিক স্বার্থবিরোধী যেকোনো উদ্যোগের বিরুদ্ধে অবস্থান নেবে। তাদের লক্ষ্য, যেকোনো সিদ্ধান্ত গ্রহণের আগে ট্রাম্প যেন মনে রাখেন দেশের বেশির ভাগ মানুষ তার বিরুদ্ধে ভোট দিয়েছে।

ট্রাম্পের শপথ গ্রহণ অনুষ্ঠানে বিদায়ী প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামা, ফার্স্ট লেডি মিশেল ওবামা, সাবেক প্রেসিডেন্ট বিল ক্লিনটন তার স্ত্রী ও প্রেসিডেন্ট নির্বাচনী ট্রাম্পের প্রতিদ্বন্দ্বী হিলারি ক্লিনটন, সাবেক প্রেসিডেন্ট জর্জ বুশ, দেশটির উচ্চকক্ষ ও নিম্নকক্ষের প্রতিনিধিরা, বিশিষ্ট ব্যক্তিবর্গ ও সামরিক বেসামরিক উচ্চপদস্থ কর্মকর্তারা যোগ দেন।

ট্রাম্প দিনের শুরুতে ট্রাম্প স্ত্রী মেলানিয়াকে নিয়ে হোয়াইট হাউসের কাছের একটি গির্জায় গিয়ে প্রার্থনা করেন। এর মধ্য দিয়ে মার্কিন প্রেসিডেন্ট হিসেবে শপথ নেওয়ার দিনটি শুরু করেন তিনি।

সেখান থেকে বেরিয়ে যান মার্কিন প্রেসিডেন্টের সরকারি বাসভবন হোয়াইট হাউসে।

হোয়াইট হাউসে ট্রাম্প ও মেলানিয়াকে স্বাগত জানান বিদায়ী প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামা। সঙ্গে ছিলেন ফার্স্ট লেডি মিশেল ওবামা। একসঙ্গে কফি পান করেন তারা।

পরে সেখান থেকে চলে যান শপথ গ্রহণের অনুষ্ঠানস্থল ক্যাপিটল হিলে। সেখানে আনুষ্ঠানিকতা শেষে লাখো জনতার হর্ষধ্বনির মধ্য দিয়ে যুক্তরাষ্ট্রের পরবর্তী প্রেসিডেন্ট হিসেবে শপথ গ্রহণ করেন ট্রাম্প। শপথ গ্রহণের পর নতুন প্রেসিডেন্ট হিসেবে বক্তব্য দেন ডোনাল্ড ট্রাম্প।

ট্রাম্পের শপথ অনুষ্ঠানকে ঘিরে ব্যাপক নিরাপত্তাব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে। ওয়াশিংটনকে রীতিমতো দুর্গে পরিণত করা হয়েছে। মোতায়েন রয়েছে বিভিন্ন নিরাপত্তা বাহিনীর হাজার হাজার সদস্য।

শিরোনাম ডট কম
শিরোনাম ডট কম । অনলাইন নিউজ পোর্টাল Shironaam Dot Com । An Online News Portal
http://www.shironaam.com/

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *