আওয়ামী লীগের প্রচার ও প্রকাশনা বিষয়ক সম্পাদক হাছান মাহমুদ বিএনপি নেতাদের উদ্দেশ্যে বলেছেন, “জয়ের বিরুদ্ধে অশোভন ও অসংলগ্ন কথা বলবেন না।”
জাতীয়

‘জয়ের বিরুদ্ধে অশোভন ও অসংলগ্ন কথা বলবেন না’

আওয়ামী লীগের প্রচার ও প্রকাশনা বিষয়ক সম্পাদক হাছান মাহমুদ বিএনপি নেতাদের উদ্দেশ্যে বলেছেন, “জয়ের বিরুদ্ধে অশোভন ও অসংলগ্ন কথা বলবেন না।”আওয়ামী লীগ সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ছেলে সজীব ওয়াজেদ জয় সম্পূর্ণ বিনা পারিশ্রমিকে প্রধানমন্ত্রীর তথ্যপ্রযুক্তি উপদেষ্টা হিসেবে কাজ করছেন জানিয়ে আওয়ামী লীগের প্রচার ও প্রকাশনা বিষয়ক সম্পাদক হাছান মাহমুদ বিএনপি নেতাদের উদ্দেশ্যে বলেছেন, “জয়ের বিরুদ্ধে অশোভন ও অসংলগ্ন কথা বলবেন না।”

রোববার দুপুরে আওয়মী লীগ সভাপতির ধানমন্ডির রাজনৈতিক কার্যলয়ে আওয়ামী লীগ আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে এসব কথা জানান।

জয় প্রসঙ্গে হাছান মাহমুদ বলেন, “আজকের ডিজিটাল বাংলাদেশ স্বপ্ন নয় বাস্তবতা। এই ডিজিটাল বাংলাদেশ ধারণা তার (জয়ের) কাছ থেকেই এসেছে।”

হাছান মাহমুদ বলেন, “জিয়াউর রহমান ৭১ সালে পাকিস্থানের গুপ্তচরের ভূমিকা পালন করেছেন, বঙ্গবন্ধুসহ জাতীয় চার নেতার হত্যার সঙ্গে জিয়াউর রহমান জড়িত, রাজাকার, আল-বদর বাহিনীকে পুনর্বাসন করেছেন এবং খুনিদেরকে বিদেশি দূতাবাসে কর্মসংস্থান করেছে এসব দালিলিক প্রমাণ থেকে সজীব ওয়াজেদ জয় বিএনপি ও জিয়াউর রহমান সম্পর্কে সত্য কথা বলেছেন। আর এসব সত্য কথা বলার কারণে বিএনপি নেতারা তার (সজীব ওয়াজেদ) সম্পর্কে অশোভন ও অসংলগ্ন কথা বলছেন।”

বিএনপি নেতারা ডিমেনশিয়া রোগে আক্রান্ত (বন্যপ্রাণি হুনুমানের এই রোগ হয়)মন্তব্য করে বিএনপির সমর্থিত চিকিৎসকদের সংগঠন ড্যাব নেতাদের প্রতি আহ্বান জানিয়ে সাবেক এই মন্ত্রী বলেন, “আপনারা আপনাদের নেতাদের মানসিক সুস্থতার পরীক্ষা করুন।”

জিয়াউর রহমানকে আপনারা পাকিস্থানের গুপ্তচর বলেছেন সেই পরিপ্রেক্ষিতে তার বীরউত্তম খেতাব প্রত্যাহার করবেন কিনা সাংবাদিকদের এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, “জনমনে জিয়াউর রহমানের মুক্তিযুদ্ধ চলাকালীন কর্মকাণ্ড নিয়ে প্রশ্ন উঠেছে। তারা দাবি করছে তার খেতাব প্রত্যাহার করা উচিত।”

তবে সরকার এই বিষয়ে কী ভাবছে এ নিয়ে কোনো মন্তব্য করেননি আওয়ামী লীগের এই নেতা।

ছাত্রলীগ ও ৫ জানুয়ারি নির্বাচন নিয়ে প্রধানমন্ত্রীর জনপ্রশাসন বিষয়ক উপদেষ্টা এইচ টি ইমামের মন্তব্য সম্পর্কে প্রশ্ন করা হলে তিনি বলেন, “এই বিষয়ে আমি অবগত নই।”

একাত্তরে শেখ হাসিনার অন্তরীণ অবস্থা নিয়ে মির্জা ফখরুলের বক্তব্যের নিন্দা জানিয়ে তিনি বলেন, “বঙ্গমাতা ফজিলাতুননেসা মুজিবসহ অন্তঃসত্ত্বা শেখ হাসিনাকে গ্রেফতার করে পাকিস্তানি সামরিক জান্তা। অন্তরীণ অবস্থাতেই নিদারুণ কষ্টের মধ্যে আজকের প্রধানমন্ত্রীর তথ্যপ্রযুক্তি উপদেষ্টা সজীব ওয়াজেদ জয়ের জন্ম। কিন্তু মির্জা ফখরুল ন্যাক্কারজনকভাবে বন্দীদশা নিয়ে উপহাস করেছেন, যা দুঃখজনক।”

সংবাদ সম্মেলনে আরো উপস্থিত ছিলেন, আওয়ামী লীগের স্বাস্থ্য বিষয়ক সম্পাদক বদিউজ্জামান ভূঁইয়া ডাবলু, ত্রাণ ও সমাজকল্যাণ বিষয়ক সম্পাদক ফরিদুন নাহার লাইলী, শিল্প বিষয়ক সম্পাদক আব্দুস সত্তার, দফতর বিষয়ক সম্পাদক আবদুস সোবহান গোলাপ, উপ-প্রচার প্রকাশনা সম্পাদক অসীম কুমার উকিল, নির্বাহী কমিটির সদস্য এস এম কামাল হোসেন, সুজিত রায় নন্দী প্রমুখ।

শিরোনাম ডট কম
শিরোনাম ডট কম । অনলাইন নিউজ পোর্টাল Shironaam Dot Com । An Online News Portal
http://www.shironaam.com/

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *