জামায়াতের ডাকা হরতালের কারণে আগামী ৫ ও ৬ নভেম্বরের জেএসসি-জেডিসি পরীক্ষা পেছানো হয়েছে। পরিবর্তিত সময়সূচি অনুযায়ী ৫ নভেম্বরের পরীক্ষা ১৯ তারিখ এবং ৬ তারিখের পরীক্ষা ২০ নভেম্বর অনুষ্ঠিত হবে।
শিক্ষাঙ্গন

জেএসসি-জেডিসি পরীক্ষা আবারও পিছিয়েছে

জামায়াতের ডাকা হরতালের কারণে আগামী ৫ ও ৬ নভেম্বরের জেএসসি-জেডিসি পরীক্ষা পেছানো হয়েছে। পরিবর্তিত সময়সূচি অনুযায়ী ৫ নভেম্বরের পরীক্ষা ১৯ তারিখ এবং ৬ তারিখের পরীক্ষা ২০ নভেম্বর অনুষ্ঠিত হবে।জামায়াতের ডাকা হরতালের কারণে আগামী ৫ ও ৬ নভেম্বরের জেএসসি-জেডিসি পরীক্ষা পেছানো হয়েছে। পরিবর্তিত সময়সূচি অনুযায়ী ৫ নভেম্বরের পরীক্ষা ১৯ তারিখ এবং ৬ তারিখের পরীক্ষা ২০ নভেম্বর অনুষ্ঠিত হবে। সকাল ৯টা থেকে ১২টা পর্যন্ত পরীক্ষা নেয়া হবে।

সচিবালয়ে সোমবার শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত এক জরুরি সভায় এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

সভায় শিক্ষাসচিব মো. নজরুল ইসলাম খান, মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদপ্তরের মহাপরিচালক প্রফেসর ফাহিমা খাতুন, ঢাকা শিক্ষা বোর্ডের চেয়ারম্যান অধ্যাপক দিলারা হাফিজ উপস্থিত ছিলেন।

পূর্ব নির্ধারিত সময়সূচি অনুযায়ী, ৫ নভেম্বর জেএসসিতে ইংরেজি প্রথম পত্র ও ৬ নভেম্বর ইংরেজি দ্বিতীয় পত্রের পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা ছিলো।

অন্যদিকে, জেডিসিতে ৫ নভেম্বর আরবি প্রথম পত্র ও ৬ নভেম্বর আরবি দ্বিতীয় পত্রের পরীক্ষা হওয়ার কথা ছিলো।

এর আগেও ২ ও ৩ নভেম্বরের হরতালের কারণে পরীক্ষা পেছানো হয়েছে। পরিবর্তিত সময়সূচি অনুযায়ী আগামী ২ নভেম্বরের পরীক্ষা ৭ তারিখ এবং ৩ তারিখের পরীক্ষা ১৪ নভেম্বর অনুষ্ঠিত হবে।

এর আগে গত ২৩ জুলাই পরীক্ষার সময়সূচি প্রকাশ করে শিক্ষা মন্ত্রণালয়। আগামী ২ নভেম্বর থেকে ১৮ নভেম্বর পর্যন্ত পরীক্ষার সময় নির্ধারিত ছিল।

হরতালে পরিক্ষার্থীদের নিরাপত্তার কথা বিবেচনা করেই পরীক্ষা পেছানোর সিদ্ধান্ত নেয় শিক্ষা মন্ত্রণালয়।

উল্লেখ্য, এ বছর জেএসসি ও জেডিসি উভয় পরীক্ষায় অংশ নেবে ২০ লাখ ৯০ হাজার ৬৯২ শিক্ষার্থী। এর মধ্যে জেএসসিতে ১৭ লাখ ৬৪ হাজার ৫৯৫ জন এবং জেডিসিতে ৩ লাখ ২৬ হাজার ৯৭ জন। এ বছর জেএসসি পরীক্ষায় ছাত্র ১ লাখ ৩০ হাজার ২৫৬ জন। ছাত্রী ৯ লাখ ৩৪ হাজার ৩৩৯ জন। আর জেডিসি পরীক্ষায় ছাত্র ১ লাখ ৫৪ হাজার ৯২৭ জন এবং ছাত্রী ১ লাখ ৭১ হাজার ১৭০ জন। উভয় পরীক্ষায় কেন্দ্র সংখ্যা ২ হাজার ৫২৫ এবং প্রতিষ্ঠানের সংখ্যা ২৭ হাজার ৯২৫টি।

শিরোনাম ডট কম
শিরোনাম ডট কম । অনলাইন নিউজ পোর্টাল Shironaam Dot Com । An Online News Portal
http://www.shironaam.com/

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *