zafar-iqbal-stabbed-by-unidentified-youth

জাফর ইকবালকে ছুরিকাঘাত, সিএমএইচে স্থানান্তর

শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক ড. মুহম্মদ জাফর ইকবালকে ছুরিকাঘাত করেছে ফয়জুর রহমান ওরফে ফয়জুল (২৪) নামের এক যুবক। বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসের পার্শ্ববর্তী কুমারগাঁওয়ের শেখপাড়ার বাসিন্দা ফয়জুর রহমান। তাঁর মূল বাড়ি সুনামগঞ্জের জগন্নাথপুরে। ঘটনার পরপরই শেখপাড়ার বাসাটি তালাবদ্ধ করে ফয়জুলের পরিবারের সদস্যরা চলে গেছেন।

ফয়জুলের বাবা মাওলানা হাফিজুর রহমান সিলেট-সুনামগঞ্জ সড়কের পার্শ্ববর্তী টুকেরবাজারে একটি মাদ্রাসায় শিক্ষকতা করেন।

ছয়জন পুলিশ সদস্যের নিরাপত্তা বেষ্টনীর মধ্যেই শনিবার বিকাল সাড়ে ৫টার দিকে শাবি ক্যাম্পাসে এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনার পর রক্তাক্ত অবস্থায় জাফর ইকবালকে ওসমানী মেডিকেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

বিশ্ববিদ্যালয়ের মুক্তমঞ্চে ইলেকট্রিক্যাল অ্যান্ড ইলেকট্রনিক ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের আয়োজনে ‘ইইই ফেস্টিভ্যাল’ চলছে। আজ ছিল রোবটিক প্রতিযোগিতা। অনুষ্ঠানটি শিক্ষার্থীদের সঙ্গে জাফর ইকবালও উপভোগ করছিলেন। এ সময় হঠাৎ এক অজ্ঞাত যুবক জাফর ইকবালকে পেছন দিক থেকে মাথায় ছুরিকাঘাত করে। দ্রুত তাকে উদ্ধার করে সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেয়া হয়। এ সময় ছুরিকাঘাতকারী যুবককে ধরে ব্যাপক মারধর করে শাবি শিক্ষার্থীরা।

জালালাবাদ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শফিকুল ইসলাম বলেন, হামলার পরপরই হামলাকারী যুবককে আটক করা হয়। তবে তিনি মরার মতো পড়ে আছেন। কোনো কথারই জবাব দিচ্ছেন না।

সিলেট মহানগর পুলিশের অতিরিক্ত উপকমিশনার জ্যোতির্ময় সরকার বলেন, জাফর ইকবালকে উদ্ধার করতে গিয়ে পুলিশের বেশ কয়েকজন সদস্য আহত হয়েছেন। পুলিশই ওই হামলাকারী যুবককে ধরে প্রক্টরিয়াল বডির হাতে দেয়।

এদিকে শিক্ষকের ওপর হামলার প্রতিবাদে ক্যাম্পাসে বিক্ষোভ করছেন শিক্ষার্থীরা। এরই মধ্যে ক্যাম্পাসে সমাজতান্ত্রিক ছাত্রফ্রন্ট বিক্ষোভ মিছিল করেছে। তারা ‘শিক্ষকের ওপর হামলা কেন? প্রশাসন জবাব চাই’ বলে স্লোগান দেয়। হাসপাতালেও ভিড় করছেন শিক্ষার্থীরা।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *