জাফর ইকবালকে ছুরিকাঘাত, সিএমএইচে স্থানান্তর
জাতীয়

জাফর ইকবালকে ছুরিকাঘাত, সিএমএইচে স্থানান্তর

শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক ড. মুহম্মদ জাফর ইকবালকে ছুরিকাঘাত করেছে ফয়জুর রহমান ফয়জুল (২৪) নামের এক যুবক। বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসের পার্শ্ববর্তী কুমারগাঁওয়ের শেখপাড়ার বাসিন্দা ফয়জুর রহমান। তাঁর মূল বাড়ি সুনামগঞ্জের জগন্নাথপুরে। ঘটনার পরপরই শেখপাড়ার বাসাটি তালাবদ্ধ করে ফয়জুলের পরিবারের সদস্যরা চলে গেছেন।

ফয়জুলের বাবা মাওলানা হাফিজুর রহমান সিলেট-সুনামগঞ্জ সড়কের পার্শ্ববর্তী টুকেরবাজারে একটি মাদ্রাসায় শিক্ষকতা করেন।

ছয়জন পুলিশ সদস্যের নিরাপত্তা বেষ্টনীর মধ্যেই শনিবার বিকাল সাড়ে ৫টার দিকে শাবি ক্যাম্পাসে এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনার পর রক্তাক্ত অবস্থায় জাফর ইকবালকে ওসমানী মেডিকেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

বিশ্ববিদ্যালয়ের মুক্তমঞ্চে ইলেকট্রিক্যাল অ্যান্ড ইলেকট্রনিক ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের আয়োজনে ‘ইইই ফেস্টিভ্যাল’ চলছে। আজ ছিল রোবটিক প্রতিযোগিতা। অনুষ্ঠানটি শিক্ষার্থীদের সঙ্গে জাফর ইকবালও উপভোগ করছিলেন। এ সময় হঠাৎ এক অজ্ঞাত যুবক জাফর ইকবালকে পেছন দিক থেকে মাথায় ছুরিকাঘাত করে। দ্রুত তাকে উদ্ধার করে সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেয়া হয়। এ সময় ছুরিকাঘাতকারী যুবককে ধরে ব্যাপক মারধর করে শাবি শিক্ষার্থীরা।

জালালাবাদ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শফিকুল ইসলাম বলেন, হামলার পরপরই হামলাকারী যুবককে আটক করা হয়। তবে তিনি মরার মতো পড়ে আছেন। কোনো কথারই জবাব দিচ্ছেন না।

সিলেট মহানগর পুলিশের অতিরিক্ত উপকমিশনার জ্যোতির্ময় সরকার বলেন, জাফর ইকবালকে উদ্ধার করতে গিয়ে পুলিশের বেশ কয়েকজন সদস্য আহত হয়েছেন। পুলিশই ওই হামলাকারী যুবককে ধরে প্রক্টরিয়াল বডির হাতে দেয়।

এদিকে শিক্ষকের ওপর হামলার প্রতিবাদে ক্যাম্পাসে বিক্ষোভ করছেন শিক্ষার্থীরা। এরই মধ্যে ক্যাম্পাসে সমাজতান্ত্রিক ছাত্রফ্রন্ট বিক্ষোভ মিছিল করেছে। তারা ‘শিক্ষকের ওপর হামলা কেন? প্রশাসন জবাব চাই’ বলে স্লোগান দেয়। হাসপাতালেও ভিড় করছেন শিক্ষার্থীরা।

আগেই পেয়েছিলেন হুমকি
শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক ড. মুহম্মদ জাফর ইকবাল এবং তার স্ত্রী অধ্যাপিকা ড. ইয়াসমিন হককে ২০১৬ সালের ১৩ অক্টোবর হত্যার হুমকি দেয়া হয়েছিল। মোবাইল ফোনে এসএমএস পাঠিয়ে তাদের হুমকি দেয়া হয় নিষিদ্ধ ঘোষিত জঙ্গি সংগঠন আনসারুল্লাহ বাংলা টিমের (এবিটি) নামে।
পরদিন ১৪ অক্টোবর এ ব্যাপারে সিলেটের জালালাবাদ থানায় সাধারণ ডায়েরি (জিডি) করেছেন তারা। জিডি নং ৫৯২ (১৪-১০-২০১৬)। এর পর থেকে তাদের নিরাপত্তা জোরদার করা হয়। এ ব্যাপারে পুলিশ সতর্ক অবস্থানে রয়েছে।

জিডিতে উল্লেখ করা হয়েছিল, ১৩ অক্টোবর রাতে রাজধানীর বনানীর ডিওএইচএসে অবস্থান করছিলেন ড. জাফর ইকবাল দম্পতি। মধ্যরাতে একই নম্বর থেকে পৃথকভাবে তাদের মোবাইল ফোনে এসএমএস দেয়া হয়। প্রথম এসএমএস আসে রাত ১২টা ১৭ মিনিটে ইয়াসমিন হকের মোবাইলে। তাতে ইংরেজিতে লেখা ছিল- ÈWelcome to our new top list! Your breath may stop at anytime.’- ABT।” পরের এসএমএসটি পাঠানো হয় ড. জাফর ইকবারে মোবাইল ফোনে রাত ২টা ৩০ মিনিটে। সেখানে লেখা হয়, ÈHi unbeliever! we will strangulate you soon.’

অজ্ঞাতনামা ব্যক্তির মোবাইল নম্বর থেকে আসা এই দুটি এসএমএসকে জীবনের হুমকি মনে করে তারা থানায় (জিডি) অভিযোগ করেন।

তিন পুলিশ সদস্যরা মোবাইল নিয়ে ব্যস্ত ছিলেন
শনিবার বিকালে শাবিতে এক অনুষ্ঠানে জাফর ইকবালের ওপর হামলার আগে তোলা এক ছবিতে দেখা যায়, জাফর ইকবালের নিরাপত্তার দায়িত্বে থাকা তিন পুলিশ সদস্যদের মধ্যে দুজনই তাদের মোবাইল নিয়ে ব্যস্ত। এ সময় তাদের পাশেই দাঁড়িয়ে থাকতে দেখা যায় ওই হামলাকারী যুবককে।

বিকাল ৫টা ৩৫ মিনিটের দিকে বিশ্ববিদ্যালয়ের মুক্তমঞ্চে এক অনুষ্ঠানে অধ্যাপক জাফর ইকবালকে ছুরিকাঘাত করে ওই যুবক। পরে তাকে উদ্ধার করে ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেয়া হয়। ঘটনার পরপরই শিক্ষার্থীরা হামলাকারীকে আটক করে গণপিটুনি দেয়। বর্তমানে তাকে আটক রাখা হয়েছে।

হামলার শিকার ড. মুহম্মদ জাফর ইকবালকে উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকায় সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালে (সিএমএইচ) আনা হয়েছে। রাত ১০টা ২৫ মিনিটে বিমান বাহিনীর বিশেষ বিমানে ওসমানী বিমানবন্দর থেকে সিএমএইচের উদ্দেশ্যে রওনা হয়।

এর আগে শনিবার বিকাল ৫টা ৩৫মিনিটের দিকে শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (শাবিপ্রবি) হামলার শিকার হন ড. জাফর ইকবাল। এরপর তাকে নেওয়া হয় ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে। সেখানে তাকে প্রাথমিক চিকিৎসা দেওয়া হয়।

রাত ৮ টা ৪০ মিনিটে শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (শাবিপ্রবি) উপাচার্য ফরিদ উদ্দিন আহমদ বলেন, উন্নত চিকিৎসার জন্য এয়ার অ্যাম্বুলেন্সে করে ড. জাফর ইকবালকে ঢাকা নেওয়ার সিদ্ধান্ত হয়েছে।

শিরোনাম ডট কম
শিরোনাম ডট কম । অনলাইন নিউজ পোর্টাল Shironaam Dot Com । An Online News Portal
http://www.shironaam.com/

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *