ম্যাক্সওয়েল ম্যাজিকে চ্যাম্পিয়ন অস্ট্রেলিয়া

কার্লটন ত্রিদেশীয় ওয়ানডে সিরিজ ফাইনালে গ্লেন ম্যাক্সওয়েলের অলরাউন্ড পারফরম্যান্সে ইংল্যান্ডকে ১১২ রানের বিশাল ব্যবধানে হারিয়ে শিরোপা ঘরে তুলেছে অস্ট্রেলিয়া।

কার্লটন ত্রিদেশীয় ওয়ানডে সিরিজ ফাইনালে গ্লেন ম্যাক্সওয়েলের অলরাউন্ড পারফরম্যান্সে ইংল্যান্ডকে ১১২ রানের বিশাল ব্যবধানে হারিয়ে শিরোপা ঘরে তুলেছে অস্ট্রেলিয়া।কার্লটন ত্রিদেশীয় ওয়ানডে সিরিজ ফাইনালে গ্লেন ম্যাক্সওয়েলের অলরাউন্ড পারফরম্যান্সে ইংল্যান্ডকে ১১২ রানের বিশাল ব্যবধানে হারিয়ে শিরোপা ঘরে তুলেছে অস্ট্রেলিয়া। প্রথমে ব্যাট করে অস্ট্রেলিয়ার সংগ্রহ করে ২৭৮ রান। এর জবাবে ব্যাট করতে নেমে মাত্র ১৬৬ রানে অলআউট হয়ে যায় ইংল্যান্ড।

রোববার পার্থে টসে জিতে প্রথমে ফিল্ডিং করার সিদ্ধান্ত নেয় ইংল্যান্ড। ব্যাট করতে নেমে শুরুতেই জেমস অ্যান্ডারসন ও স্টুয়ার্ট ব্রডের বোলিং তোপের মুখে পড়ে অস্ট্রেলিয়া। স্কোরবোর্ডে কোনো রান না তুলেই অ্যান্ডারসনের বলে জো রুটের হাতে ক্যাচ দিয়ে সাজঘরে ফেরেন অ্যারন ফিঞ্চ। ডেভিড ওয়ার্নারও ফিঞ্চকে অনুসরণ করে দলীয় ৩৩ রানের মাথায় ব্যক্তিগত ১২ রানেই সাজঘরে ফেরেন। এরপর দলীয় ৪৬ রানে আউট হন জর্জ বেইলি। ৬০ রানে স্টিভেন স্মিথের (৪০) ফেরা বিরাট ধাক্কা হয়েই আসে অসিদের জন্য।

৬০ রানে ৪ উইকেট হারিয়ে ধুঁকতে থাকা অস্ট্রেলিয়াকে খাদ থেকে তুলে আনে গ্লেন ম্যাক্সওয়েল, মিচেল মার্শ ও জেমস ফকনার ত্রয়ী। এ তিন ব্যাটসম্যানের কৃতিত্বে ৫০ ওভার শেষে ৮ উইকেট হারিয়ে অস্ট্রেলিয়া সংগ্রহ দাঁড়ায় ২৭৮। ৯৮ বল খেলে ম্যাক্সওয়েল করেন ৯৫ রান। আর মার্শ করেন ৬৮ ও জেমস ফকনার অপরাজিত ছিলেন মাত্র ২৪ বলে ৫০ রান করে।

ইংল্যান্ডের পক্ষে ব্রড নেন ৩ উইকেট ও অ্যান্ডারসন নেন ২ উইকেট। এছাড়া স্টিভেন স্মিথ ও মঈন আলী নেন ১টি করে উইকেট।

২৭৯ রানের লক্ষ্যে ব্যাট করতে নেমে ১৬৬ রানেই অলআউট ইংল্যান্ড। ব্যাট করতে নেমে শুরুতেই বিপর্যয়ের মুখে পড়ে তারা। তাদের সামনে বাধা হয়ে দাঁড়ায় মিচেল জনসন ও হ্যাজলউড বোলিং জুটি।

এ জুটির বোলিং তোপে নিয়মিত উইকেট হারাতে থাকে ইংল্যান্ড। ৭১ রানে ৫ উইকেট তুলে জয়ের অনেকটা কাছাকাছি চলে আসে অস্ট্রেলিয়া। মাঝখানে রবি বোপারা ও ব্রড কিছুটা প্রতিরোধ গড়লেও বিষাক্ত ছোবল মারেন ম্যাক্সওয়েল। ম্যাক্সওয়েলের ৯ ওভারে ৪৬ রানের বিনিময়ে ৪ উইকেট শিকারে ১৬৬ রানে মুখ থুবড়ে পড়ে ইংল্যান্ডের ইনিংস। মিচেল জনসন ৩টি ও হ্যাজলউড নেন ২টি উইকেট।

ইংল্যান্ডের ইনিংসে সর্বোচ্চ ৩৩ রান আসে রবি বোপারার ব্যাট থেকে। ৫৯ বলের মোকাবেলায় এ রান সংগ্রহ করেন তিনি। এছাড়া মইন আলী ২৬ ও জো রুট ২৫ ও ব্রড করেন ২৪ রান।

সংক্ষিপ্ত স্কোর

অস্ট্রেলিয়া : ২৭৮/৮ (ম্যাক্সওয়েল ৯৫, মার্শ ৬০, ফকনার ৫০*; ব্রড ৩/৫৫)

ইংল্যান্ড : ১৬৬/১০ (মঈন ২৬, রুট ২৫, বোপারা ৩৩ ; ম্যাক্সওয়েল ৪/৪৬, জনসন ৩/২৭)

ফল : ১১২ রানে জয়ী অস্ট্রেলিয়া

ম্যাচ সেরা : গ্লেন ম্যাক্সওয়েল (অস্ট্রেলিয়া)

সিরিজ সেরা: মিচেল স্টার্ক (অস্ট্রেলিয়া)

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *