বুধবার চট্টগ্রামনগরীর মুরাদপুর থেকে লালখানবাজর পর্যন্ত নগরীর দীর্ঘতম ফ্লাইওভারের নির্মাণ কাজের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।
জাতীয়

চট্টগ্রামে ফ্লাইওভার নির্মাণ উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী

বুধবার চট্টগ্রামনগরীর মুরাদপুর থেকে লালখানবাজর পর্যন্ত নগরীর দীর্ঘতম ফ্লাইওভারের নির্মাণ কাজের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।বুধবার চট্টগ্রাম নগরীর মুরাদপুর থেকে লালখানবাজার পর্যন্ত নগরীর দীর্ঘতম ফ্লাইওভারের নির্মাণ কাজের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। নয় মিনিটের সংক্ষিপ্ত এক বক্তৃতায় তিনি বলেন ‘আমরা সন্ত্রাস ও জঙ্গিবাদ চাই না, আমরা চাই উন্নয়ন, শান্তি ও গণতন্ত্র’। ২০২১ সালের মধ্যে বাংলাদেশ মধ্যম আয়ের এবং ২০৪১ সালের মধ্যে দক্ষিণ এশিয়ার উন্নত দেশে পরিণত হবে।’

তিনি আরও বলেন, আমি ঢাকায় বাস করলেও চট্টগ্রামবাসীর সঙ্গে আমার আত্মার আত্মীয়তা। চট্টগ্রামকে আমরা প্রকৃত অর্থে দ্বিতীয় রাজধানীর মর্যাদা দিতে কাজ করে যাচ্ছি।

ফ্লাইওভারের নির্মাণ কাজ চলাকালে চট্টগ্রামবাসীর সহযোগিতা কামনা করেন প্রধানমন্ত্রী বলেন, আমরা চট্টগ্রামের উন্নয়নের জন্য কথা দিয়েছিলাম। নির্মাণকাজ চলাকালে চট্টগ্রামবাসীকে তাদের সহযোগিতা অব্যাহত রাখতে হবে।

সিডিএ সূত্র জানায়, নগরীর যানজট নিরসন ও এশিয়ান হাইওয়ের সঙ্গে যুক্ত হতে ২০১২ সালের ২ জানুয়ারি নগরীর মুরাদপুর, দুই নাম্বার গেইট হয়ে জিইসি পর্যন্ত ফ্লাইওভার নির্মাণের ভিত্তিপ্রস্তুর স্থাপন করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। পরে পরামর্শক উপদেষ্টা প্রতিষ্ঠানের পরামর্শক্রমে ফ্লাইওভারের দৈর্ঘ্য বাড়িয়ে লালখানবাজার পর্যন্ত নেয়া হয়।

ফ্লাইওভারের দৈর্ঘ্য বাড়ানোর ফলে ১৫০ কোটি ৭০ লাখ টাকার প্রাক্কলিত ব্যয় বেড়ে বর্তমানে এই প্রকল্পের ব্যয় ধরা হয়েছে ৪৬২ কোটি টাকা। ফ্লাইওভারটি মুরাদপুর থেকে দুই নম্বর গেইট, জিইসি, ওয়াসা হয়ে লালখান বাজারে গিয়ে শেষ হবে।

৪৬২ কোটি টাকা ব্যয়ে ৫ হাজার দুইশত মিটার দৈর্ঘ্যের ফ্লাইওভারটি নির্মাণের কাজ পেয়েছে ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান ম্যাক্স র‌্যাঙ্কিন জেভি।

অগ্রাধিকার প্রকল্পের আওতায় চলতি বছরের ১২ নভেম্বর শুরু হয়ে এই ফ্লাইওভারটির নির্মাণ কাজ ২০১৬ সালের মধ্যে সম্পন্ন হবে বলে জানিয়েছেন সিডিএ চেয়ারম্যান আবদুচ ছালাম।

সিডিএর নির্মাণাধীন এই ফ্লাইওভার প্রকল্পের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন- গৃহায়ন ও গণপূর্ত মন্ত্রী ইঞ্জিনিয়ার মোশাররফ হোসেন, ভূমিপ্রতি মন্ত্রী সাইফুজ্জামান চৌধুরী জাবেদ, সাবেক মন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ, সাবেক মন্ত্রী ডা. আফসারুল আমীন এমপি, পটিয়ার আওয়ামী লীগ দলীয় সাংসদ শামসুল হক চৌধুরী, চন্দনাইশের সাংসদ নজরুল ইসলাম চৌধুরী, সাতকানিয়ার সাংসদ ড. আবু রেজা নদভী, চট্টগ্রাম উত্তর জেলা আওয়ামী লীহের সভাপতি নুরুল আলম চৌধুরী, দক্ষিণ জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মোসলেম উদ্দিন আহমেদ, নগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আ জ ম নাছির উদ্দিন, চট্টগ্রাম জেলা পরিষদের প্রশাসক এম এ সালামসহ প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের সচিবসহ ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা।

 

 

 

শিরোনাম ডট কম
শিরোনাম ডট কম । অনলাইন নিউজ পোর্টাল Shironaam Dot Com । An Online News Portal
http://www.shironaam.com/

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *