গুগলের নতুন সিইও ভারতীয় বংশোদ্ভূত সুন্দর পিশাই

গুগলের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা (সিইও) হিসেবে ভারতীয় বংশোদ্ভূত সুন্দর পিশাইয়ের (৪৩) নাম ঘোষণা করা হয়েছে।

গুগলের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা (সিইও) হিসেবে ভারতীয় বংশোদ্ভূত সুন্দর পিশাইয়ের (৪৩) নাম ঘোষণা করা হয়েছে। গুগলের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা (সিইও) হিসেবে ভারতীয় বংশোদ্ভূত সুন্দর পিশাইয়ের (৪৩) নাম ঘোষণা করা হয়েছে।

১৯৭২ সালে ভারতের চেন্নাইয়ে জন্মগ্রহণ করেন তিনি। আজ মঙ্গলবার প্রতিষ্ঠানটির প্রতিষ্ঠাতা ল্যারি পেজ ও সার্গেই ব্রিন এই ঘোষণা দেন।

টাইমস অব ইন্ডিয়া অনলাইনের প্রতিবেদনে জানানো হয়েছে, আকস্মিকভাবে প্রতিষ্ঠান পুনর্গঠন করেছে গুগল। এর অংশ হিসেবে প্রতিষ্ঠানের শীর্ষ পদে পরিবর্তন এসেছে।

এতে আরও বলা হয়েছে, অ্যালফাবেট ইংক নামে একটি নতুন মাদার কোম্পানি এনেছে গুগল। এখন থেকে ওই মাদার কোম্পানির অধীনে কাজ করবে গুগল। অ্যালফাবেট ইংকের সিইও হচ্ছেন ল্যারি পেজ। আর এর প্রেসিডেন্ট হিসেবে থাকবেন সার্গেই ব্রিন। পুনর্গঠন প্রক্রিয়ায় গুগলের নতুন সিইও হিসেবে কাজ করবেন সুন্দর পিশাই।

গুগলের নতুন প্রধান সুন্দর পিশাই সম্পর্কে ৭টি তথ্য

ভারতীয় বংশোদ্ভূত ৪৩ বছর বয়সী সুন্দর পিশাই এখন গুগল সংস্থার সিইও। কিন্তু অনেকেরই হয়তো পিশাই সম্পর্কে সম্যক ধারণা নেই। আর দেরি না করে সেরে ফেলুন ভারতের এই কৃতি সন্তানের সঙ্গে পরিচয়পর্ব।

১. তামিলনাড়ুর ছেলে সুন্দর পিশাই ব্যাচেলর ইন টেকনলজির ডিগ্রি পান খড়গপুর আইআইটি থেকে।

২. খড়গপুর আইআইটি থেকে পড়াশোনা শেষ করার পর তিনি পাড়ি দেন মার্কিন মুলুকে। সেখানে স্ট্যানফোর্ড থেকে তিনি এমএস করেন এবং পেনসিলভেনিয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের ওয়ার্টন স্কুল থেকে এমবিএ করেন। ওয়ার্টন স্কুলে পিশাইকে সিবেল স্কলার এবং পামার স্কলারের স্বীকৃতি দেওয়া হয়।

৩. গুগল-এ চাকরি করার আগে অ্যাপলায়েড মেটিরিয়ালস-এ ইঞ্জিনিয়ার হিসেবে চাকরি করতেন পিশাই। পরবর্তী সময়ে ম্যাকেন্সি অ্যান্ড কোম্পানি-র ম্যানেজমেন্ট কনসালটিং-এর অংশ ছিলেন সুন্দর পিশাই।

৪. ২০০৪ সালে গুগল-এর প্রডাক্ট ম্যানেজমেন্টের ভাইস প্রেসিডেন্ট পদে যোগদান করেন সুন্দর পিশাই। তার নেতৃত্বেই আত্মপ্রকাশ করে গুগল ক্রোম ব্রাউজার ও অপারেটিং সিস্টেম। এর পরে তার কাঁধে এসে পড়ে একের পর এক দায়িত্ব। ফায়ারফক্স, গুগল টুলবার, ডেস্কটপ সার্চ, গ্যাজেট এবং গুগল গিয়ার-এর কাজের দেখভাল করতে শুরু করেন পিশাই।

৫. ২০০৮-এর সেপ্টেম্বর মাসে সফলভাবে আত্মপ্রকাশ করে ক্রোম ওয়েব ব্রাউজার। তার এক বছরের মধ্যে নেটবুক এবং ডেস্কটপের জন্যে তিনি বের করেন ওয়েব-বেসড ক্রোম অপারেটিং সিস্টেম।

৬. ২০১২ সালে যখন গুগল অ্যাপস-এর প্রধান ডেভ গিরোয়ার্ড গুগল ছেড়ে শুরু করেন নিজের সংস্থা আপস্টার্ট, তখন গুগল অ্যাপস-এর দায়িত্বও আসে সুন্দর পিশাইয়ের হাতে। এরপর ২০১৩ সালে অ্যানড্রয়েড-এর অন্যতম প্রতিষ্ঠাতা এবং সিইও অ্যান্ডি রুবিন চাকরি ছেড়ে দেন, তখনও অ্যানড্রয়েড সামলানোর দায়িত্ব আসে পিশাইয়ের হাতেই।

৭. নিজের টিমের প্রতি খুবই দায়িত্ববান পিশাই। তার টিম ম্যানেজমেন্ট স্কিল প্রশংসনীয়। তার টিম যাতে প্রাপ্য সম্মান পায় সেই দিকে বিশেষ নজর রাখতেন সুন্দর পিশাই।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *