ভারতে গীতা প্রতিযোগিতায় বিজয়ী মুসলিম ছাত্রী

ভারতের মুম্বাইয়ের মীরা রোডে কসমোপলিটান হাই স্কুলের ৬ষ্ঠ শ্রেণির ছাত্রী ১২ বছরের মারিয়ম আসিফ সিদ্দিকী।

ভারতে গীতা প্রতিযোগিতায় শীর্ষ স্থান পেল ১২ বছরের এক মুসলিম কিশোরী। প্রায় সাড়ে চার হাজার পড়ুয়া ওই প্রতিযোগিতায় অংশ নিয়েছিল। সবাইকে পিছনে ফেলে প্রথম স্থান অধিকার করেছে মুম্বাইয়ের মীরা রোডের একটি স্কুলের ষষ্ঠ শ্রেণীর ছাত্রী মারিয়ম আসিফ সিদ্দিকী

ভারতের মুম্বাইয়ের মীরা রোডে কসমোপলিটান হাই স্কুলের ৬ষ্ঠ শ্রেণির ছাত্রী ১২ বছরের মারিয়ম আসিফ সিদ্দিকী। ভগবত গীতার একটি প্রতিযোগিতায় সে ৪ হাজার ৫ শত জন শিক্ষার্থীকে পেছনে ফেলে সেরাদের সেরা হয়েছে সে। আন্তঃস্কুল প্রতিযোগিতায় মরিয়ম এই সাফল্য পায়।

গীতা চ্যাম্পিয়নস লীগ কনটেস্ট নামের ওই প্রতিযোগিতার আয়োজন করে আন্তর্জাতিক সোসাইটি ফর কৃষ্ণা কনসাসনেস (ইস্ককন)।

মারিয়মের এই সাফল্যে উচ্ছ্বসিত তার বাবা-মা। তার বাবা আসিফ বলেন, মারিয়ম এই প্রতিযোগিতার জন্য এক মাস ধরে প্রস্তুতি নিয়েছে।

গীতার ওপর শিক্ষার্থীদের জ্ঞানের মূল্যায়ন করার জন্য সংশ্লিষ্ট বিষয়ের ওপর ১০০ নম্বরের নৈব্যক্তিক প্রশ্নে ওই পরীক্ষা নেওয়া হয়।

এই প্রতিযোগিতায় ১৯৫টি স্কুলের শিক্ষার্থীরা অংশগ্রহণ করে। এগুলোর মধ্যে ১০৫টি বেসরকারি ও বাকি ৯০টি সরকারি স্কুল।

গীতা নিয়ে রাজনৈতিক নেতারা যখন হাওয়া গরম করার রাস্তায় চলছেন তখন মারিয়ম বলেছে, গীতা থেকে সে শিখেছে-মানবিকতাই বিশ্বে সবচেয়ে বড় ধর্ম। সে আরও বলেছে, জীবন সম্পর্কে অনেক কিছু জানতে পেরেছি গীতা পড়ে। গীতা পড়ে শিখেছি, অনেক ধর্ম থাকলেও মানবিকতাই সবচেয়ে সেরা ধর্ম।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *