5-killed-as-Maitree-Express-train-rams-private-car

গাজীপুরে ট্রেনের ধাক্কায় একই পরিবারের ৪ জনের মৃত্যু

গাজীপুরের কালিয়াকৈর উপজেলার গোয়ালবাথান এলাকার সোনাখালী রেলক্রসিংয়ে ট্রেনের ধাক্কায় একই পরিবারের ৪ জনসহ মোট ৫ জনের মৃত্যু হয়েছে। এ দুর্ঘটনায় সকাল সাড়ে ৯টা থেকে ঢাকা-উত্তরবঙ্গ রেলসড়কে ট্রেন চলাচল বন্ধ রয়েছে।

নিহতরা হলো- উপজেলার গোয়ালবাথান এলাকার রিপনের স্ত্রী নুসরাত জাহান লাকি (৩৫) ও তার মেয়ে রুবাইয়া নুরজাত রিভা (৪), একই এলাকার বিদ্যুতের স্ত্রী সোনিয়া (২৯) ও তার ছেলে তাহসিন আহমেদ তালহা (৪) এবং প্রাইভেটকারচালক মিনহাজ (৪৫)।

কালিয়াকৈর উপজেলার গোয়ালবাথান এলাকার সোনাখালী রেলক্রসিংয়ে সকাল সাড়ে ৯টার দিকে ঢাকা-রাজশাহী রেলরুটে দুর্ঘটনাটি ঘটে।

কালিয়াকৈর থানার এসআই মো. রাসেল শেখ জানান, সকাল সায়া ৯টার দিকে বিদ্যুত ও রিপনের পরিবার একটি প্রাইভেটকারে গোয়ালবাথান এলাকার খ্রিস্টান মিশন স্কুলে যাচ্ছিল।

প্রাইভেটকারটি ঘটনাস্থলে রেলক্রসিং পার হতে গেলে কলকাতাগামী মৈত্রী এক্সপ্রেস ট্রেনটি ধাক্কা দেয়। এতে ট্রেনের নিচে পড়ে প্রাইভেটকারটি চূর্ণবিচূর্ণ হয়ে ঘটনাস্থলেই শিশুসহ পাঁচজন মারা যায়।

কালিয়াকৈর থানার ওসি আব্দুল মোতালেব মিয়া বলেন, অরক্ষিত রেল ক্রসিংয় দিয়ে প্রাইভেটকারটি রেলসড়ক পার হচ্ছিল। এসময় কলকাতাগামী মৈত্রী এক্সপ্রেস ট্রেনটি প্রাইভেটকারকে ধাক্কা দেয়। এতে প্রাইভেটকার বহুদূরে ছিটকে পড়ে এবং চূর্ণবিচূর্ণ হয়ে যায়। এ দুর্ঘটনায় কারের ৫ যাত্রী ঘটনাস্থলেই মারা যায়।

চারজনের লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। আটকে থাকা কলকাতাগামী মৈত্রী এক্সপ্রেস ট্রেনটির দুইটি বগি উদ্ধার করে মির্জাপুর রেলস্টেশনে পাঠানো হয়েছে এবং ইঞ্জিনসহ ট্রেনটি ঢাকার অভিমুখে রওনা হয়েছে।

জয়দেবপুর রেলওয়ে জংশনের স্টেশন মাস্টার মো. শহিদুল ইসলাম জানান, সকাল সোয়া ৯টার দিকে দুর্ঘটনার পর থেকে ঢাকা-রাজশাহী-কলকাতা রুটে ট্রেন চলাচল সাময়িক বন্ধ রয়েছে। মৈত্রী এক্সপ্রেসের লাইচ্যুত বগি উদ্ধার করা হয়েছে।

দুর্ঘটনার পর ঢাকাগামী সিরাজগঞ্জ এক্সপ্রেস ও চাঁপাই এক্সপ্রেস এবং উত্তরবঙ্গগামী সুন্দরবন এক্সপ্রেস, ধূমকেতু এক্সপ্রেস ও নীলসাগর এক্সপ্রেস ট্রেনসহ কয়েকটি ট্রেন আশপাশের স্টেশনগুলোতে যাত্রাবিরতি করেছে বলে জানান স্টেশন মাস্টার।

শিরোনাম ডট কম
শিরোনাম ডট কম । অনলাইন নিউজ পোর্টাল Shironaam Dot Com । An Online News Portal
http://www.shironaam.com/

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *