কিউবা-যুক্তরাষ্ট্র ঐতিহাসিক আলোচনা শুরু বুধবার

কূটনৈতিক সম্পর্ক ভেঙে পড়ার ৫০ বছরেরও বেশি সময় পর যুক্তরাষ্ট্র ও কিউবার মধ্যে ঐতিহাসিক আলোচনা শুরু হতে যাচ্ছে।

কূটনৈতিক সম্পর্ক ভেঙে পড়ার ৫০ বছরেরও বেশি সময় পর যুক্তরাষ্ট্র ও কিউবার মধ্যে ঐতিহাসিক আলোচনা শুরু হতে যাচ্ছে। কূটনৈতিক সম্পর্ক ভেঙে পড়ার ৫০ বছরেরও বেশি সময় পর যুক্তরাষ্ট্র ও কিউবার মধ্যে ঐতিহাসিক আলোচনা শুরু হতে যাচ্ছে। আগামী বুধ ও বৃহস্পতিবার কিউবার রাজধানী হাভানায় এ আলোচনা শুরু হবে।

মার্কিন স্টেট ডিপার্টমেন্টের এক ‍সিনিয়র কর্মকর্তা জানিয়েছেন, বৈঠকে তারা মার্কিন কূটনীতিকদের চলাফেরার ওপর আরোপ করা নিষেধাজ্ঞা তুলে নিতে কিউবার প্রতি আহ্বান জানাবেন। সেই সঙ্গে উভয় দেশে দূতাবাস খোলারও প্রস্তাব দেবেন তারা।

আলোচনায় যুক্তরাষ্ট্রের পক্ষে নেতৃত্ব দেবেন দেশটির ল্যাটিন আমেরিকা বিষয়ক কূটনীতিক রবার্ট জ্যাকবসন। ৩৮ বছর পর এটিই কোনো মার্কিন সহকারী সেক্রেটারির কিউবা সফর।

তিনি সাংবাদিকদের বলেছেন, ‘কিউবা মার্কিন কূটনীতিকদের চলাফেরার ওপর যে নিষেধাজ্ঞা আরোপ করেছে তা প্রত্যাহার করার আহ্বান জানাব।’ ওয়াশিংটন শীঘ্রই হাভানায় দূতাবাস খুলতে যাচ্ছে বলেও জানান তিনি।

এর আগে গত সোমবার চার মার্কিন ডেমোক্রেটিক সিনেটর এবং দুইজন কংগ্রেসম্যান তাদের তিন দিনের কিউবা সফর শেষ করেন। তারা কিউবার পররাষ্ট্রমন্ত্রী ব্রুনো রদ্রিগেজ এবং দেশটির বিরোধী নেতাসহ অন্যদের সঙ্গে সাক্ষাৎ করেন।

১৯৬১ সালে দেশ দুটির মধ্যে পূর্ণাঙ্গ কূটনৈতিক সম্পর্ক ভেঙে পড়ে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *