মহাসচিব হয়েই কারাগারে মির্জা ফখরুল
জাতীয়

মহাসচিব হয়েই কারাগারে মির্জা ফখরুল

মহাসচিব হয়েই কারাগারে মির্জা ফখরুলবিএনপির ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব থেকে পূর্ণাঙ্গ মহাসচিব হিসেবে দায়িত্বভার গ্রহণের দিনেই
মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরকে পল্টন থানার নাশকতার দুই মামলায় জামিন নামঞ্জুর করে জেলহাজতে পাঠিয়েছেন আদালত।

বুধবার নাশকতার তিন মামলায় মির্জা ফখরুল ঢাকার সিএমএম আদালতে আত্মসমর্পণ করে জামিন আবেদন করেন। শুনানি শেষে একটি মামলায় জামিন মঞ্জুর করলেও অপর দুই মামলায় জামিনের আবেদন নামঞ্জুর করে তাকে জেলহাজতে পাঠানোর আদেশ দেন মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট গোলাম নবী।

মির্জা ফখরুলের অন্যতম আইনজীবী জয়নুল আবেদিন মেজবাহ সাংবাদিকদের জানান, পল্টন থানার নাশকতার ৪/১-২০১৫ নম্বর মামলায় জামিন দিলেও ৫/১-২০১৫ ও ৭/১-২০১৫ নম্বর মামলায় তা নামঞ্জুর করেছেন আদালত।

গত ২৯ ফেব্রুয়ারি মির্জা ফখরুলকে ১৫ দিনের মধ্যে বিচারিক আদালতে আত্মসমর্পণের নির্দেশ দিয়েছিলেন প্রধান বিচারপতি সুরেন্দ্র কুমার সিনহার নেতৃত্বাধীন ৫ সদস্যের আপিল বিভাগ।

গত বছরের ৫ জানুয়ারি সরকার বিরোধী হরতাল অবরোধে ২০ দলীয় জোটের আন্দোলনের সময় পল্টন থানার নাশকতার ওই তিন মামলায় মির্জা ফখরুলকে সুপ্রিমকোর্টের হাইকোর্ট বিভাগ অন্তর্বর্তীকালীন জামিন দেন।

মির্জা ফখরুলের ওই জামিনের বিরুদ্ধে রাষ্ট্রপক্ষের আপিলে গেলে রুল নিষ্পত্তি না হওয়া পর্যন্ত জামিন বহাল রাখেন আপিল বিভাগ। একই সাথে মেয়াদ শেষে নিম্ন আদালতে আত্মসমর্পণ করতে নির্দেশ দেন। এছাড়াও হাইকোর্টকে রুলটি নিষ্পত্তি করতে বলেন। পরে হাইকোর্ট গত বছরের ২৪ নভেম্বর রুল নিষ্পত্তি করে ওই তিন মামলায় মির্জা ফখরুলকে তিন মাসের জামিন দেন।

‘ফখরুলকে কারাগারে পাঠানো সরকারের নগ্ন চরিত্রের বহিঃপ্রকাশ’

মহাসচিবের নাম ঘোষণার পর মির্জা ফখরুলকে কারাগারে পাঠানো সরকারের ষড়যন্ত্রের নগ্ন চরিত্রের বহিঃপ্রকাশ বলে দাবি করেছেন বিএনপির নব মনোনীত সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী আহমেদ। একইসঙ্গে বিএনপির উপর সরকারের নগ্ন হামলা বলে ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন তিনি।

বুধবার দুপুরে ফখরুলকে কারাগারে পাঠানোর প্রতিবাদে নয়াপল্টন এলাকায় বিক্ষোভ শেষে কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে তাৎক্ষণিক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এসব কথা বলেন।

রিজভী বলেন, সকালে বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার অনুমোদনে যখন মহাসচিবের নাম ঘোষণা হয়েছে তথন তিনি আদালতে হাজিরা দিতে গিয়েছিলেন। মহাসচিবের নাম ঘোষণার পর কার্যালয়ে যখন নেতাকর্মীরা উল্লাস করতে জড়ো হচ্ছিলেন। অথচ সরকার সংক্ষিপ্ত আনন্দের সময়ও বরদাস্ত করতে পারলো না।

তিনি বলেন, এটা রাজনৈতিক হীন উদ্দেশ্য নয়, গভীর ষড়যন্ত্র। সরকার বেশামাল হয়ে গেছে। ষড়যন্ত্রের নগ্ন চরিত্রের বহিঃপ্রকাশ। তারা (সরকার) শেষ মরণ কামড় দেয়ার চেষ্টা করছে।

ক্ষোভ প্রকাশ করে রিজভী বলেন, গ্রেফতার বাণিজ্যের মাধ্যমে গত ৭ বছর নির্যাতন নিপীড়ন করে যখন বিএনপিকে শেষ করতে পারেনি। তখন আবার নতুন মাত্রায় নির্যাতনের কৌশলে জেগে উঠেছে সরকার।

সরকারের কোনো চক্রান্ত সফল হবে না উল্লেখ করে রিজভী বলেন, মির্জা ফখরুলের বিরুদ্ধে মিথ্যা মামলা প্রত্যাহার করতে হবে। অন্যথায় কর্মসূচি ঘোষণা করা হবে। জোর করে সররকার সিংহাসন ধরে রাখতে পারবে না। সে সময় চলে এসেছে। যে কোন মুহূর্তে তীব্র গণবিক্ষোভে সরকারকে রাস্তায় লুটিয়ে পড়তে হবে।

ফখরুল মহাসচিব, রিজভী সিনিয়র যুগ্ম-মহাসচিব

মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরকে বিএনপির মহাসচিব পদে মনোনয়ন দিয়েছেন বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া। এ ছাড়া রুহুল কবির রিজভীকে সিনিয়র যুগ্ম-মহাসচিব ও মিজানুর রহমান সিনহাকে বিএনপির কোষাধ্যক্ষ পদে মনোনয়ন দেয়া হয়েছে।
বুধবার বেলা সোয়া ১১টায় রাজধানীর নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত এক সংবাদ সম্মেলনে দলের তিন পদে নতুন মনোনয়নের কথা জানান রুহুল কবির রিজভী।

২০১১ সালের মার্চে মহাসচিব খন্দকার দেলোয়ার হোসেন মৃত্যুবরণ করলে মির্জা ফখরুল বিএনপির ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব হন। এর ছয় বছর পর পূর্ণাঙ্গ মহাসচিবের দায়িত্ব পেলেন তিনি।

সংবাদ সম্মেলনে রিজভী বলেন, গত ১৯ মার্চ বিএনপির ৬ষ্ঠ কাউন্সিল অনুষ্ঠিত হয়েছে। সে কাউন্সিলে কাউন্সিলররা দলের চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়াকে নেতৃত্বে নির্বাচনের ক্ষমতা দিয়েছেন। সেই ক্ষমতাবলে তিনি এ তিনটি পদে এদেরকে নির্বাচিত করেছেন।

সংবাদ সম্মেলনে আরো উপস্থিত ছিলেন বিএনপির আন্তর্জাতিক বিষয়ক সম্পাদক নাজিম উদ্দিন আলম, যুব বিষয়ক সম্পাদক যুব বিষয়ক সম্পাদক সৈয়দ মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল, শিক্ষা বিষয়ক সম্পাদক খায়রুল কবির খোকন, সহ স্বেচ্ছাসেবক বিষয়ক সম্পাদক এবি এম মোশাররফ হোসেন, জাসাস সভাপতি আবদুল মালেক প্রমুখ।

শিরোনাম ডট কম
শিরোনাম ডট কম । অনলাইন নিউজ পোর্টাল Shironaam Dot Com । An Online News Portal
http://www.shironaam.com/

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *