কম্বোডিয়ায় উদ্বোধন করা হলো দেশটির বৃহত্তম মসজিদের। অটোমান আদলের নকশায় তৈরি এই মসজিদটির উদ্বোধন করেন দেশটির প্রধানমন্ত্রী হান সেন।
আন্তর্জাতিক

কম্বোডিয়ার বৃহত্তম মসজিদ উদ্বোধন

কম্বোডিয়ায় উদ্বোধন করা হলো দেশটির বৃহত্তম মসজিদের। অটোমান আদলের নকশায় তৈরি এই মসজিদটির উদ্বোধন করেন দেশটির প্রধানমন্ত্রী হান সেন

উদ্বোধনের পর শুক্রবার  জুমার নামাজে সহস্রাধিক মুসল্লি অংশগ্রহণ করেন।

নম পেনের উপকণ্ঠের শান্ত শহর বোয়েং কাকে স্থাপিত মসজিদটির নাম আল-সের্কাল গ্র্যান্ড মসজিদ।  আমিরাতি ব্যবসায়ী আইসা বিন নাসের বিন আবদুললতিফ আরসের্কাল মসজিদটি নির্মাণে অর্থায়ন করেছেন।

২০১২ সালে বিধ্বস্ত একটি পুরনো মসজিদের স্থানে নতুন মসজিদটি গড়ে উঠেছে।

কম্বোডিয়ান মুসলিম কমিউনিটি ডেভেলপমেন্ট অর্গানাইজেশনের সভাপতি আহমদ ইয়াহিয়া এই মসজিদটিকে এ ধরনের মসজিদের মধ্যে ‘ বৃহত্তম এবং সুন্দরতম’ বলে আখ্যায়িত করেন।

এ মসজিদটিকে তিনি কম্বোডিয়ার মুসলিম সম্প্রদায়ের জন্য একটি গুরুত্বপূর্ণ অধ্যায় বলে মন্তব্য করেন।

তিনি বলেন, ‘সারাদেশের মানুষ যখন নম পেনে আসেন তখন তারা এই মসজিদে নামাজের জন্য আসেন এবং যেসব পর্যটক কম্বোডিয়ায় বেড়াতে আসেন তারাও এখানে নামাজ আদায় করতে আসেন।’

নয়নাভিরাম এই মসজিদটি তৈরিতে খরচ হয়েছে ২০ লাখ ডলার বা প্রায় ১৬ কোটি টাকা। শুক্রবার জুমার নামাজ আদায় করতে এখানে দূর-দুরন্ত থেকে মুসল্লিরা জমায়েত হন। এখানে পুরুষ ও মহিলাদের জন্য রয়েছে আলাদা ব্যবস্থা। উভয় প্রার্থনা হলই কানায় কানায় পরিপূর্ণ হয়ে যায়।

কম্বোডিয়ায় সত্তরের দশকে উগ্র মাওবাদী খেমা রুজদের শাসনামলে নির্যাতিত হয়েছেন মুসলমানরা।

এখানে মুসলমানদের স্থানীয়ভাবে চাম বলা হয়।

ইয়াহিয়া বলেন, প্রধানমন্ত্রী হান সেন কম্বোডিয়ার মুসলমানদের উচ্ছ্বসিত প্রশংসা করেছেন।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘কম্বোডিয়ার মুসলিমদের কোনো সমস্যা নেই।  তারা নিজেদের মধ্যে সংঘাতে লিপ্ত নেই এবং তাদের মধ্যে কোনো বৈষম্যও নেই যেমনটা অন্য অনেক দেশে আছে শিয়া ও সুন্নীদের মধ্যে।’

কম্বোডিয়ার বৌদ্ধদের মতই মুসলিমদের জন্য প্রধানমন্ত্রী ‘খুবই গবির্ত’ বলে জানান ইয়াহিয়া।

ইয়াহিয়া জানান, মসজিদটিকে আকর্ষণীয়ভাবে তৈরি করা হয়েছে  যাতে এখানে নামাজ আদায় করতে লোকজন স্বস্তি পায়।

 

শিরোনাম ডট কম
শিরোনাম ডট কম । অনলাইন নিউজ পোর্টাল Shironaam Dot Com । An Online News Portal
http://www.shironaam.com/

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *