জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের (এনবিআর) চেয়ারম্যান গোলাম হোসেন ও তার স্ত্রী জাকিয়া মনসুর হোসেনের ব্যাংক হিসাবের বিবরণ চেয়ে ব্যাংকগুলোতে চিঠি দিয়েছে রাজস্ব বোর্ডের অধীনস্থ সংস্থা সেন্ট্রাল ইন্টেলিজেন্স সেল (সিআইসি)।
অর্থনীতি

এনবিআর চেয়ারম্যানের ব্যাংক হিসাব তলব

জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের (এনবিআর) চেয়ারম্যান গোলাম হোসেন ও তার স্ত্রী জাকিয়া মনসুর হোসেনের ব্যাংক হিসাবের বিবরণ চেয়ে ব্যাংকগুলোতে চিঠি দিয়েছে রাজস্ব বোর্ডের অধীনস্থ সংস্থা সেন্ট্রাল ইন্টেলিজেন্স সেল (সিআইসি)।জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের (এনবিআর) চেয়ারম্যান গোলাম হোসেন ও তার স্ত্রী জাকিয়া মনসুর হোসেনের ব্যাংক হিসাবের বিবরণ চেয়ে ব্যাংকগুলোতে চিঠি দিয়েছে রাজস্ব বোর্ডের অধীনস্থ সংস্থা সেন্ট্রাল ইন্টেলিজেন্স সেল (সিআইসি)।

ব্যাংকগুলোর কাছে এই চিঠি পাঠিয়ে ২০০৭ সালের ১ জুলাই থেকে হালনাগাদ তথ্য চাওয়া হয়েছে।

সিআইসি থেকে ব্যাংকগুলোতে পাঠানো চিঠি বলা হয়েছে, ‘এনবিআর চেয়ারম্যান গোলাম হোসেন ও তার স্ত্রী জাকিয়া মনসুর হোসেনের নামে আপনাদের ব্যাংকে একক বা যৌথ নামে কোনো মেয়াদি আমানত হিসাব (এফডিআর ও এসটিডি হিসাবসহ যে কোনো ধরনের বা নামের মেয়াদি আমানত হিসাব), যে কোনো ধরনের বা মেয়াদের সঞ্চয়ী হিসাব, চলতি হিসাব, ঋণ হিসাব, ফরেন কারেন্সি এ্যাকাউন্ট, ক্রেডিট কার্ড, সঞ্চয়পত্র বা অন্য যে কোনো ধরনের সেভিংস ইন্সট্রুমেন্ট, ইনভেস্টমেন্ট স্কিম বা ডিপোজিট স্কিম বা অন্য যে কোনো ধরনের বা নামের হিসাব পরিচালিত বা রক্ষিত হয়ে থাকলে আগামী সাত দিনের মধ্যে তা জানাতে হবে।’

সময়মতো তথ্য দিতে না পারলে ব্যাংকগুলোকে এককালীন ২৫ হাজার টাকা জরিমানা করা হবে বলে জানিয়েছে সিআইসি। দেরির জন্য প্রতিদিন ৫০০ টাকা হারে জরিমানার কথাও চিঠিতে উল্লেখ করা হয়েছে।

চিঠিতে গোলাম হোসেন ও তার স্ত্রীর রাজধানীর শান্তিনগরের বর্তমান ঠিকানার পাশাপাশি চাঁদপুরের কচুয়া উপজেলার হাসিমপুর গ্রামের স্থায়ী ঠিকানাও উল্লেখ করা হয়েছে।

আয়কর অধ্যাদেশ ১৯৮৪ এর ১১৩ (এফ) ধারার ক্ষমতাবলে সিআইসি এই চিঠি পাঠিয়েছে। সিআইসি সাধারণত কোনো ব্যক্তি বা প্রতিষ্ঠান আয়কর বা ভ্যাট ফাঁকি দিয়েছে কি না বা তার অপ্রদর্শিত আয় আছে কি না, তা যাচাই করার জন্য সংশ্লিষ্ট ব্যক্তি বা প্রতিষ্ঠানের ব্যাংক হিসাবের তথ্য চেয়ে থাকে।

২০১২ সালের অক্টোবরে এনবিআর চেয়ারম্যানের দায়িত্বে আসেন গোলাম হোসেন। এর আগে তিনি বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের সচিব ছিলেন।

তার ঠিক আগে বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের সচিব ছিলেন তিনি। বিসিএসের ১৯৮২ ব্যাচের কর্মকর্তা এ কর্মকর্তা শুল্ক বিভাগে কাজ শুরু করার পর বিভিন্ন দপ্তরে বিভিন্ন পদে ছিলেন, যুক্তরাষ্ট্রে দূতাবাসেও কাজ করেন তিনি। তিনি ১৯৯৬-৯৮ সাল পর্যন্ত প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে ছিলেন। তার স্ত্রী জাকিয়া মনসুর শিক্ষকতা করেন।

শিরোনাম ডট কম
শিরোনাম ডট কম । অনলাইন নিউজ পোর্টাল Shironaam Dot Com । An Online News Portal
http://www.shironaam.com/

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *