Earthquake-kills-97-in-Indonesia

ইন্দোনেশিয়ায় শক্তিশালী ভূমিকম্পে নিহত ৯৭

ইন্দোনেশিয়ার সুমাত্রা দ্বীপের আচেহ প্রদেশে শক্তিশালী ভূমিকম্পে নিহত হয়েছে ৯৭ জন।

স্থানীয় সময় বুধবার ভোরে ৬ দশমিক ৫ মাত্রার এই ভূমিকম্প অনুভূত হয়। ধ্বংসস্তূপের ভেতর এখনো বহু মানুষ আটকে আছেন বলে ধারণা করা হচ্ছে। উদ্ধারকর্মীরা দ্রুত ধ্বংসস্তূপের ভেতর থেকে হতাহতদের উদ্ধারের চেষ্টা করছেন।

৭০ জনের বেশি মানুষ গুরুতর আহত অবস্থায় প্রদেশের বিভিন্ন হাসপাতালে চিকিৎসা নিচ্ছেন। এ ছাড়া আরো ২০০ মানুষ মোটামুটি মাত্রায় আহত হয়েছেন বলে জানিয়েছে এএফপি। তবে এসব সংখ্যা বেলা বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে আরো বাড়তে পারে বলে আশঙ্কা প্রকাশ করেছে দেশটির জাতীয় দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা সংস্থা।

দেশটির জাতীয় দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা সংস্থা জানিয়েছে, ভোরে তীব্র ঝাঁকুনিতে স্থানীয়দের ঘুম ভাঙে। ভূমিকম্পে শত শত আবাসিক ভবন, মসজিদ, বিপণিবিতানসহ বিভিন্ন স্থাপনা ভেঙে পড়ে। সেই সঙ্গে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে স্থানীয় হাসপাতাল ও স্কুল ভবনগুলোও।

সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ছড়িয়ে পড়া ছবিতে ধ্বংসস্তূপ, ভেঙে পড়া বিদ্যুতের খুঁটি ও রাস্তায় ক্ষতিগ্রস্ত মানুষকে জড়ো হতে দেখা যায়।

যুক্তরাষ্ট্রের ভূতাত্ত্বিক জরিপ সংস্থা ইউএসজিএস জানিয়েছে, আচেহ প্রদেশের উত্তর-পূর্ব সীমান্ত থেকে ১৭ কিলোমিটার গভীরে ছিল ভূমিকম্পটির উৎপত্তিস্থল। মূল কম্পনের পরে অন্তত পাঁচটি পরবর্তী কম্পন অনুভূত হয়েছে। তবে দেশটিতে সুনামি সতর্কতা জারি করা হয়নি।

২০০৪ সালের ২৬ ডিসেম্বর ইন্দোনেশিয়ায় ৯.১ মাত্রার ভূকম্পন অনুভূত হয়। সেই কম্পন ১০ মিনিটের উপর স্থায়ী হয়েছিল। এতে তৈরি হয় বিশাল সুনামি। মৃত্যু হয় কমপক্ষে ১ লাখ ৭০ হাজার মানুষের। সে সময় সুনামির জেরে শ্রীলঙ্কাতে কমপক্ষে ৩৫ হাজার, ভারতে ১৮ হাজার ও থাইল্যান্ডে ৮ হাজার জনের মৃত্যু হয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *