শনিবার আশরাফুলের নিষেধাজ্ঞা উঠে যাচ্ছে

শনিবার আশরাফুলের নিষেধাজ্ঞা উঠে যাচ্ছে

শনিবার আশরাফুলের নিষেধাজ্ঞা উঠে যাচ্ছেশনিবার মোহাম্মদ আশরাফুলের ক্রিকেট নিষেধাজ্ঞা উঠে যাচ্ছে। আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে ফিরতে না পারলেও বাংলাদেশের ঘরোয়া ক্রিকেটে খেলতে পারবেন বাংলাদেশ জাতীয় ক্রিকেট দলের সাবেক অধিনায়ক ও টেস্ট ক্রিকেটের সর্বকনিষ্ঠ সেঞ্চুরিয়ান।

তবে কোন ধরনের ঘরোয়া ক্রিকেটে তিনি অংশ নিতে পারবেন, এই জন্য আন্তর্জাতিক ক্রিকেট কাউন্সিলের (আইসিসি) জবাবের অপেক্ষায় রয়েছে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড।

বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগ (বিপিএল)-এ ২০১৩ সালের সংস্করণে ম্যাচ ফিক্সিংয়ে জড়িয়েছিলেন আশরাফুল। যে কারণে ২০১৪ সালে আশরাফুলেকে ৮ বছরের নিষেধাজ্ঞা ও ১০ লাখ টাকা জরিমানা করা হয়েছিল আইসিসির পক্ষ থেকে।

এই শাস্তির বিপক্ষে আপীল করেছিলেন আশরাফুল। তার আপীলের প্রেক্ষিতে পরবর্তীতে ২০১৪ সালের সেপ্টেম্বরে আশরাফুলের শাস্তি কমিয়ে ৫ বছরের নিষেধাজ্ঞায় নামিয়ে আনা হয়। এর মধ্যে ছিল দুই বছরের স্থগিতাদেশ দণ্ড।

তবে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে তিনি ফিরতে পারবেন ২০১৮ সালে।

২০১৪ সালে বিসিবির এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছিল, ‘ভালো আচরণের বিষয়ে আইসিসির কাছ থেকে সার্টিফিকেট যোগাড় করতে পারলে ২০১৬ সালের ১৩ আগস্ট থেকে ক্রিকেটে ফিরতে পারবেন আশরাফুল।’

শাস্তি পাওয়ার পর আইসিসি ও বিসিবির বিভিন্ন দুর্নীতি বিরোধী কার্যক্রমে অংশ নিয়েছেন মোহাম্মদ আশরাফুল। ২০১৫ সালের বিপিএলে দুর্নীতির বিরুদ্ধে সচেতনতামুলক একটি ভিডিওতেও অংশ নেন তিনি।

বিসিবি সূত্রে জানা গেছে, নিষেধাজ্ঞা উঠে যাওয়ার পর আশরাফুল আপাতত ঘরোয়া ক্রিকেটে খেলতে পারবেন। ঘরোয়া প্রথম শ্রেণীর ম্যাচ খেলতে বাধা নেই তার। অন্যদিকে, আইসিসি সদস্য দেশগুলোর বিপক্ষে প্রথম শ্রেণীর মর্যাদা পাবে না এমন ম্যাচেও খেলতে পারবেন আশরাফুল।

বিসিবির প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা নিজামউদ্দিন চৌধুরী মিডিয়াকে জানিয়েছেন, আশরাফুল ঘরোয়া ক্রিকেটের কোন ধরনের ম্যাচ খেলতে পারবে, ফ্রাঞ্চাইভিত্তিক আসরে (যেমন বিপিএল) সে খেলতে পারবে কী না, এই বিষয়ে আইসিসির কাছ থেকে পরিষ্কার নির্দেশনা জানার অপেক্ষায় রয়েছে বিসিবি। তিনি বলেছেন, ‘আইসিসিকে এই বিষয়ে চিঠি পাঠিয়েছি আমরা। আশা করছি, ১৪ আগস্টের মধ্যেই বিস্তারিত জানতে পারব।’

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *