জেনে নিন আমলকির ১২টি গুন

জেনে নিন আমলকির ১২টি গুন

733
0
SHARE

জেনে নিন আমলকির ১২টি গুন আমাদের দেশের সর্বত্র আমলকি পাওয়া যায়। হাতের নাগালের এই ছোট ফল দামে সস্তা কিন্তু পুষ্টিগুণে ভরপুর।

শরীরে ভিটামিন ‘সি’ এর অভাব মেটাতে আমলকির জুড়ি নেই। ভিটামিন ‘সি’ এর অভাবে যেসব রোগ হয় যেমন- স্কার্ভি, মেয়েদের লিউকরিয়া, অর্শ প্রভৃতি ক্ষেত্রে আমলকি খেলে উপকার পাওয়া যায়।

জেনে নিন আমলকির ১২টি গুন।

১. আমলকি খেলে চোখের দৃষ্টিশক্তি ভালো থাকে। এছাড়া লোহিত রক্তকণিকার সংখ্যা বাড়িয়ে দাঁত ও নখ ভাল রাখে।

২. হার্টের রোগীর জন্য নিয়মিত আমলকি খাওয়া খুবই উপকারি। হার্টের রোগীরা আমলকি খেলে ধরফরানি কমবে।

৩. টাটকা আমলকি খেলে তৃষ্ণা মেটে, ঘন ঘন প্রস্রাব হওয়া বন্ধ করে, পেট পরিষ্কার করে। আমলকি খেলে মুখে রুচি বাড়ে।

৪. আমলকি ক্ষুধা বাড়ায় ও শরীর ঠাণ্ডা রাখে। এছাড়া পেটের পীড়া, সর্দি, কাশির জন্যও খুবই উপকারী।

৫. পিত্ত সংক্রান্ত যেকোনো রোগে সামান্য মধু মিশিয়ে আমলকি খেলে উপকার হয়। বারবার বমি হলে শুকনো আমলকি এককাপ পানিতে ভিজিয়ে ঘণ্টা দুই পর সেই পানিতে একটু শ্বেত চন্দন ও চিনি মিশিয়ে খেলে বমি বন্ধ হয়।

৬. আমলকি ত্বকের জন্য খুবই উপকারি। নিয়মিত আমলকি খেলে ব্রণের দাগ দূর করে সেইসঙ্গে দেয় সতেজ ও মসৃণ ত্বক।

৭. কাঁচা আমলকী বেটে চুলে লাগালে চুলের গোড়া শক্ত হয় সেইসঙ্গে অকাল পক্কতা দূর হয়। এছাড়া চুল ঝরঝরে থাকে এবং চুলের রং কালো হয়।

৮. আমলকী বেটে নারকেল তেলের সঙ্গে মিশিয়ে নিয়মিত ব্যবহার করলে রাতে ভালো ঘুম হয় ও মাথা ঠাণ্ডা থাকে।

৯. রাতে আমলকির সঙ্গে বহেরা ও হরতকী মিশিয়ে পানিতে ভিজিয়ে রেখে পরেরদিন সকালে খালি পেটে খেলে কোষ্টকাঠিন্য থেকে মুক্তি পাওয়া যায়।

১০. তিন থেকে চার গ্রাম শুকনো আমলকীর গুড়া এক চামচ মধুর সঙ্গে মিশিয়ে এক সপ্তাহ খেলে বহু মুত্র রোগ থেকে মুক্তি পাওয়া যায়।

১১. আমলকী বেটে তার সঙ্গে সাদা চন্দন ভালভাবে মিশিয়ে কপালে ম্যাসাজ করলে মাথা ব্যাথা থেকে মুক্তি পাওয়া যায়।

১২. প্রতিদিন সকালে খালি পেটে ৪/৫ গ্রাম আমলকি পাতার রসের সঙ্গে পরিমান মতো চিনি মিশিয়ে একমাস খেলে চিরতরে অম্ল রোগ ভালো হয়ে যায়।

Comments

comments