আপনার বয়স ৩০, কিন্তু একা যে ৭ কারণে

আপনার বয়স ৩০, কিন্তু একা যে ৭ কারণে

আপনার বয়স ৩০, এখনও একা দায়ী কিন্তু আপনিই। দেখাতে চাইছেন, মনে ভাবছেন, ‘দিব্যি আছি। ভাল আছি’। তাই কী! নিজেকে প্রশ্ন করুন। উত্তর নেতিবাচক হতে বাধ্য। একাকিত্ব কার আর ভাল লাগে! এবার বরং দোষগুলো বুঝে নিজেকে শুধরে নিন।

আপনার বয়স ৩০ কিন্তু একা যে ৭ কারণে জেনে নিন।

১. ‘শেষের কবিতা’র অমিত চান? সারাজীবন তাহলে একাই কাটাতে হবে। এসব অবাস্তব কল্পনা ছাড়ুন। দোষ–গুণ মিলিয়ে মানুষ। মেনে নিতে শিখুন।

২. ঘনিষ্ঠতায় আপত্তি? এসব ঝেড়ে ফেলুন। যা হচ্ছে, হতে দিন। হাত ধরা বা একটু ছোঁওয়া খুব স্বাভাবিক। তবে বেশি ঘনিষ্ঠ হওয়ার আগে লাগাম টানুন। প্রথম ডেটেই লাফিয়ে কোলে উঠে পড়বেন না। বরং আচরণে ভারসাম্য আনুন। স্বাভাবিকভাবে তাঁর সঙ্গে মিশুন।

৩. অনেক দিন সিঙ্গেল! এই ক্ষেত্রে একা থাকার একটা অভ্যাস হয়ে যায়। মনে হয়, আবার সম্পর্কের বোঝা! ওরে বাবাহ্! এ রকম ভাববেন না। সম্পর্কের বোঝা যেমন আছে, তেমনি আপনার বোঝা কিছুটা হলেও তো সে ভাগ করে নেবে।

৪. ঘনঘন মন, মেজাজ বদলাবেন না। ভাল লাগলে তবেই ডেটে যান। পছন্দ না হলে সরাসরি বলুন। দুদিন ঘুরলেন, তার পর আচমকা কাটিয়ে দিলেন, কিছু না বলে, এটা কিন্তু ঠিক নয়। নিজের মনকে জিজ্ঞেস করুন? মানসিকভাবে প্রস্তুত থাকলে তবেই এগোন।

৫. পার্টি বা বিয়েবাড়ি যেতে ভাল লাগে না? আপনি কিন্তু ক্রমেই অসামাজিক হয়ে যাচ্ছেন। প্রথমে সোশাল সাইট, তার পর সশরীরে বন্ধুদের আড্ডায় যোগ দিন। দেখুন সেখানেই হয়তো মনের মানুষটার সঙ্গে দেখা হয়ে যেতে পারে।

৬. কাজ–কাজ করে নিজের মাথা খারাপ করবেন না। কাজে একটু–আঝটু ফাঁকি দিতে শিখুন। নয়তো সারা জীবন একাই থাকতে হবে।

৭. বন্ধুদের সঙ্গে থাকতেই বেশি ভাল লাগে। ডেটে গেলেই মনে হয় বোরিং। ডেকে নেন বন্ধুদের। তাই তো! এরকম আর নয় খবরদার। বন্ধুদের সঙ্গ তো সবারই ভাল লাগে। নতুন মানুষটির সঙ্গও উপভোগ করার চেষ্টা করুন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *